মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সকল ধর্মিয় প্রতিষ্টান

 

১। মসজিদ

বাংলাদেশ মূলত মুসলিম দেশ । আর মুসলিমদের প্রধান ধর্মীয় প্রতিষ্টান হচ্ছে মসজিদ। তাই অন্যান্যদের ন্যায় আমাদের ইউনিয়নেও অনেক মসজিদ রয়েছে। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে আবার যেসব বড় আকারের মসজিদগুলো নিয়মিত নামাজের সাথে সাথে শুক্রবারের জুম'আর নামাজ আদায় হয় এবং অন্যান্য ইসলামিক কার্যাবলী (যেমন: কোরআন শিক্ষা দেওয়া) সম্পাদিত হয়, সেগুলো জামে মসজিদ (مسجد جامع) নামে অভিহিত। ইমাম নামাজের ইমামতি করেন বা নেতৃত্ব দেন। মসজিদ মুসলমানদের বিভিন্ন ধর্মীয় কার্যাবলীর প্রাণকেন্দ্র। এখানে প্রার্থণা করা ছাড়াও শিক্ষা প্রদান, তথ্য বিতর়ণ এবং বিরোধ নিষ্পত্তি করা হয়। মসজিদের উৎকর্ষের ক্ষেত্রে, সেই সপ্তম শতাব্দির সাদাসিধে খোলা প্রাঙ্গনবিশিষ্ট মসজিদে কাবা বা মসজিদে নববী থেকে বর্তমানে এর প্রভূত উন্নয়ন ঘটেছে। এখন অনেক মসজিদেরই সুবিশাল গম্বুজ, উঁচু মিনার এবং বৃহদাকার প্রাঙ্গন দেখা যায়। মসজিদের উৎপত্তি আরব উপদ্বীপে হলেও বর্তমানে ...

২। মন্দির

হিন্দু মন্দির হল হিন্দুদের দেব-উপাসনার স্থান। 'মন্দির' বা 'দেবালয়' বলতে বোঝায় 'দেবতার গৃহ'। মানুষ ও দেবতাকে একত্রে নিয়ে আসার জন্য হিন্দুধর্মের আদর্শ ও ধর্মবিশ্বাস-সংক্রান্ত প্রতীকগুলির দ্বারা অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত ভবন বা স্থানকেই 'মন্দির' বলা হয়। জর্জ মিশেলের মতে, হিন্দু মন্দির এমন একটি আধ্যাত্মিক কেন্দ্র যেখানে মায়ার জগৎ থেকে মানুষ তীর্থযাত্রী বা পূণ্যার্থীর বেশে জ্ঞান ও সত্যের জগতের সন্ধানে আসেন। স্টেলা ক্র্যামরিসচের মতে, হিন্দু মন্দিরের প্রতীকতত্ত্ব ও গঠনভঙ্গিমা বৈদিক ঐতিহ্যের মধ্যেই নিহিত আছে। একটি মন্দিরের মধ্যে হিন্দু বিশ্বতত্ত্বের সকল ধারণার সন্ধান পাওয়া যায়। এরমধ্যে ভাল, মন্দ ও মানবিক দিকগুলির সঙ্গে সঙ্গে হিন্দুর কালচক্র ধারণা এ

৩। গীর্জা

সত্য যীশু গীর্জা একটি স্বায়ত্বশাসিত খ্রিস্টান সম্প্রদায়। এটি সর্বপ্রথম চীন এর বেইজিং শহরে ১৯১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে পৃথিবীর ৪৫টি দেশে এর ১৫ লাখ সদস্য আছে। ভারতে এর শাখা ১৯৩২ সাল থেকে আছে। এটি প্রোটেস্ট্যান্ট মতবাদের অনুসারী। এই মতবাদে বিশ্বাসীরা বড়দিন ও ইস্টার উদযাপন করা হয় না। যীশুর দ্বিতীয় উত্থানের পূর্বে সকল রাষ্ট্রে যীশুর শিক্ষা পৌছে দেওয়াই হচ্ছে চার্চের লক্ষ্য। পরিচ্ছেদসমূহ. [লুকিয়ে রাখুন]. ১ এই সম্প্রদায়ের প্রধান ১০টি বিশ্বাস হল: ১.১ পবিত্র আত্মা; ১.২ পবিত্র বারিদ্বারা অভিসিঞ্চন; ১.৩ পদ ধৌতকরণ; ১.৪ খ্রিস্টের শেষ সান্ধ্যভোজপর্বের আধ্যাত্মিক যোগাযোগ; ১.৫ সাবাথ বা সাপ্তাহিক পবিত্র দিন; ১.৬ যীশু খ্রীস্ট; ১.৭ বাইবেল; ১.৮ মোক্ষলাভ; ১.৯ গীর্জা ...

৪। প্যাগোডা

৫। ঈদগাহ

৬। শ্মশান ঘাট

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter